নীলগিরি -থানছি-তিন্দু-রেমাক্রিফলস-নাফাখুমফলস শুরুটা কিভাবে করবো বুঝতে পারছিনা যাইহোক, যদিও এই ট্যুরে যাওয়ার আমার কোনো…

অনেকদিন ধরে এই ৩টা জায়গায় যাবো যাবো করেও যাওয়া হচ্ছিলো না। খুব কমন প্লেস…
অনেকদিন ধরে এই ৩টা জায়গায় যাবো যাবো করেও যাওয়া হচ্ছিলো না। খুব কমন প্লেস…
December 20, 2018
অপূর্ব রুপে পরিপূর্ণ এক দ্বীপ সোনাদিয়া।যেখানে দেখা মিলবে অথৈই সমুদ্র, সাথে ঝাউবন লাল কাকড়ার…
অপূর্ব রুপে পরিপূর্ণ এক দ্বীপ সোনাদিয়া।যেখানে দেখা মিলবে অথৈই সমুদ্র, সাথে ঝাউবন লাল কাকড়ার…
December 20, 2018
নীলগিরি -থানছি-তিন্দু-রেমাক্রিফলস-নাফাখুমফলস শুরুটা কিভাবে করবো বুঝতে পারছিনা যাইহোক, যদিও এই ট্যুরে যাওয়ার আমার কোনো…

নীলগিরি -থানছি-তিন্দু-রেমাক্রিফলস-নাফাখুমফলস

শুরুটা কিভাবে করবো বুঝতে পারছিনা😅
যাইহোক, যদিও এই ট্যুরে যাওয়ার আমার কোনো প্ল্যান ছিল নাহ, রোয়াংছড়ি থেকে চট্রগ্রামে ফিরে যাওয়ার কথা ছিল কিন্তু সৌভাগ্যবশত দাদার থেকে অফার পেলাম যে আমরা কুমিল্লা ইউনিভার্সিটির কয়েকজন ছাত্রছাত্রীরা রেমাক্রি-নাফাকুমে যাবো তুমিও যাবা নাকি? কোনো ট্যুরের অফার পেলে সম্ভব হলে আমি কখনোই না করি নাহ,আর ওই জায়গায় যাওয়ার অনেকদিন থেকে শখ তাই সরাসরি রাজি হয়ে গেলাম। পরে ওইদিন বিকালে বান্দরবানে এসে সবার সাথে একত্রিত হয়ে পরদিন সকালে থানছির উদ্দেশ্যে রওনা হয়। দুপুরে থানছিতে পৌছে কুমিল্লা ভার্সিটির সাবেক এক বড় ভাইয়ের বাসায় কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিয়ে আবার বোটে করে রেমাক্রির উদ্দেশ্যে রওনা দিই। বিকালের দিকে রেমাক্রিতে পৌছে খাওয়া খাওয়া-দাওয়া করে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিই। রাতে আমাদের রেমাক্রিতে থাকার কথা থাকলেও আমরা নাফাকুমে চলে যায় সিদ্ধান্ত হয় রাতে সেখানে ক্যাম্পফায়ার করবো। প্রায় ২ ঘন্টা ট্রেকিং করার পর পুরো রাস্তা অন্ধকার হয়ে যায় কারণ আমাদের কেউ কেউ হাটতে হাটতে দুর্বল তাই আবার আসতে আসতে হাটতে শুরু করি মাঝে মাঝে অন্ধকারে রাস্তা হারিয়ে ফেলি, পরে রাস্তা খুজে প্রায় ১ ঘন্টা হাটার পর আমরা পৌছে যায় আমাদের গন্তব্যেস্থলে। গিয়ে দেখি নাফাখুমের চারপাশে বৃষ্টিতে ভিজা সেখানে আর ক্যাম্প করা সম্ভব হয়নি। তারপর আমরা ওই গ্রামের কার্বারির সাথে দেখা করে থাকার জায়গা খুজে নিই। কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিয়ে খাওয়া করে সবাই মিলে গানবাজনা এবং মজা করে ঘুমিয়ে পড়ি। পরদিন ভোরে ঘুম থেকে উঠে চারপাশে ঘুরাঘুরি করে এবং নাফাখুম ফলস দেখে রেমাক্রিতে ফিরে যায়। রেমাক্রিতে পৌছে আমাদের কয়েকজন বান্দরবানে ফিরে যায় আমরা রেমাক্রিতে থেকে যায় এবং দুপুরের খাবার খেয়ে রেমাক্রি বাজারে এক বড় ভাইয়ের বাসায় উঠি। তারপর রাতে ক্যাম্পফায়ার এবং বারবিকিউ- করি। প্রায় রাত ২ টা পর্যন্ত আড্ডা, গান করি। এর পরেরদিন সকালে আমরা থানছিতে ব্যাক করি এবং আমাদের লোকাল বাসে ফিরার কথা কিন্তু কোনো টিকেট পায়নি তাই বাধ্য হয়ে v70 গাড়ী ঠিক করে বান্দরবানের উদ্দেশ্যে ফিরার জন্য গাড়িতে উঠি। প্রায় ৯ কিলোমিটার আসার পর যাওয়ার সময় যে গাড়িতে করে গিয়েছিলাম সেই গাড়ির ড্রাইভার ফোন দিয়ে বলে যে তোমর কিছুক্ষণ অপেক্ষা করো আমি আসতেছি। তারপর আমরা যে এলাকায় নামি সে এলাকার নাম ছিল #দিন্তে পাড়া। সেখানে প্রায় ২:৩০ ঘন্টা এদিক-ওদিক ঘুরাঘুরি করে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করি। প্রায় সন্ধ্যার দিকে গাড়ি এসে পৌছায় এবং সবাই উঠে বান্দরবানের উদ্দেশ্যে রওয়া দিই। আমাদের ভাগ্য ভালো ছিল যে আকাশে চাঁদ উঠেছিল এবং সেই চাঁদের আলোয় চারপাশে সব পরিষ্কার দেখা যাচ্ছিল। এরপর চাঁদের আলো উপভোগ করতে করতে প্রায় ২ ঘন্টা পর আমরা বান্দরবানে পৌছায়।
সবকিছু মিলিয়ে ট্যুরটা ছিল অসাধারণ। যদিও ট্যুর না বলে এডভ্যাঞ্চার বলাই ভালো কারণ, একটি ট্যুরে যা যা থাকার দরকার সব পেয়েছিলাম😊

বিঃদ্রঃ যেখানে যান নাহ কেন যারপাশের পরিবেশ যেন আমাদের দ্বারা ক্ষতি নাহ হয়। পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকুন সুস্থভাবে বাচুন। 👏😊
#হ্যাপি_ট্রাভেলিং ❤